৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি



উমরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হবেন আমিরুল শিকদার

আলিম রাজ,ওসমানীনগর
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১

আমিরুল ইসলাম শিকদার। সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার উমরপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড’র পরপর দুু’বার নির্বাচিত জনপ্রিয় ইউপি সদস্য।

ব্যক্তিগত জীবনে সৎ, সাহসী ও জনদরদী এই স্থানীয় ইউপি সদস্য তাঁর জনকল্যাণধর্মী উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে একজন সত্যিকারের জনপ্রিয় জনপ্রতিনিধি হিসেবে নিজেকে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন।

আমিরুল ইসলাম শিকদারের সাথে একান্ত  আলাপকালে তিনি জানান, এলাকার গরিব, দুঃখী, অসহায়, অক্ষম, অস্বচ্ছল ও বয়স্ক মানুষের আর্থ-সামাজিক অবস্থা ও যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে একজন জনপ্রতিনিধি নিজের বাড়িঘর, সহায়-সম্পত্তি সবকিছু বিক্রি করেও কিছু করতে পারবেন না; কিন্তু একজন সৎ , শিক্ষিত ও যোগ্য মানুষের পক্ষেই সম্ভব সরকারি অনুদান ও ভাতা ইত্যাদি জনগণের দোরগোড়ায় নিয়ে আসা এবং সততার সাথে প্রকৃত প্রাপককে পৌছে দেয়া।

তিনি আরও জানান, তাঁর ওয়ার্ডের সচেতন জনগণ সাক্ষি বিগত দুই সেশনে তিনি কতটা দায়িত্বশীলতা, নিরপেক্ষতা ও সততার সাথে তাঁর ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

এজন্য দলমত, গোষ্ঠী-পাড়া-মহল্লা নির্বিশেষে আমিরুল মেম্বার এক জনপ্রিয় নাম। কর্মমুখর ও নিষ্ঠাবান এই জনপ্রতিনিধি কেবল এলাকার উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডেই নয় বরং সার্বিক সমস্যায় সবার আগে ঝাঁপিয়ে পড়ে শান্তিপূর্ণ সমাধানে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালান।

তিনি তাঁর এ বছরের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন সম্পর্কে জানান

প্রকল্পগুলা:

১) ঈদগাহ রাস্তার দুটি কালভার্ট সংস্কার।

২) আব্দুল হান্নান গেদা মিয়ার বাড়ির। সামনের রাস্তা ঢালাইকরণ।

৩) সুধীর মালাকারের বাড়ির সামনের রাস্তা ঢালাইকরণ।

৪) আব্দুল মালিক শিকদারের বাড়ির সামনের রাস্তা ঢালাইকরণ।

৫) হাজি মছদ্দর আলী ও হাজি শরীফ উল্লাহর বাড়ির সামনের রাস্তা ঢালাইকরণ।

৬) ছরকুম উল্লাহর বাড়ির সামনের রাস্তা ইট সলিং। তাঁর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় ঈদগাহ রাস্তার সংস্কার ও ওসমানীনগর একাডেমি মোড় থেকে গ্রামতলা মসজিদ পর্যন্ত পাকাকরণ কাজ চলমান।

এ বছরেই বাস্তবায়নে প্রস্তাবাধীন প্রকল্পের মধ্যে আছে

১) ঈদগাহ রাস্তার ঢালাই

২) ঈদগাহ রাস্তা থেকে মোল্লাবাড়ির সামনের রাস্তা ঢালাই।

এছাড়াও সকল মসজিদ, মাদরাসা, স্কুল ধর্মীয় উপাসনালয় ও দরিদ্র মানুষের ঘরে সৌরবিদ্যুৎ স্থাপন, স্কুল ও মাদরাসার মাঠভরাট, মসজিদ, আখড়া ও দরিদ্রদের বাড়িতে নলকূপ স্থাপন, শতভাগ বিদ্যুতায়ন ও খুঁটি নবায়নে তথ্য সহযোগিতা, বড় বড় রাস্তা উন্নয়ন ও তদারকিতে সহযোগিতা, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, ভিজিডি চাল ১০ টাকা দামে প্রকৃত উপকারভোগীর প্রাপ্তির নিশ্চিতকরণ, কালভার্ট, ড্রেনসহ প্রায় সকল রাস্তার ইট সলিং, সিসি, আরসিসি ঢালাই বাস্তবায়নের তথ্যচিত্রের বিবরণ দেন।

তিনি আরও জানান, তাঁর শিক্ষা, সততা ও সামাজিক গ্রহণযোগ্যতার কারণে এলাকার মানুষ প্রথমবার তাঁকে নির্বাচিত করেন। জনগণের সেই আস্থা ও বিশ্বাসের মূল্যায়নে তিনি আন্তরিকভাবে সচেষ্ট ছিলেন বলেই দ্বিতীয় মেয়াদে বিপুল ভোটের ব্যবধানে তাঁকে বিজয়ী করেন। এজন্য তিনি তাঁর ওয়ার্ডের সকল শ্রেণি পেশার কাছে চির কৃতজ্ঞ। একটি আধুনিক, উন্নত ও শান্তিপ্রিয় ওয়ার্ড গঠনে তাঁর চলমান প্রচেষ্টার ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে এ ওয়ার্ডের সকল শ্রদ্ধাভাজন ভোটাররা আবারও তাঁকে নির্বাচিত করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, আমি  আবারও নির্বাচন করবো এজন্য সকলের দোয়া ও সমর্থন কামনা করছি।

 

 






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k