২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি



কোরবানি দেয়া পশুর যে অংশ খাওয়া নিষিদ্ধ

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২০ জুলাই, ২০২১

আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় আত্মোৎসর্গ করাকে বলা হয় কোরবানি। তাৎপর্যমুতি আমল এটি।

একজন স্বাভাবিক জ্ঞানসম্পন্ন, প্রাপ্তবয়স্ক, মুসলিম যদি ‘নিসাব’ পরিমাণ সম্পদের মালিক থাকেন, তাদের পক্ষ থেকে একটি কোরবানি দেওয়া ওয়াজিব বা আবশ্যক।

কোরবানি দেওয়া পশুর মাংস খাওয়া যেমন হালাল তেমনি অনেক অংশ খাওয়া হারাম। কোরবানির পশুসহ যে কোনো হালাল প্রাণীর রক্ত খাওয়া ইসলামে নিষিদ্ধ। এ ছাড়াও রাসূলুল্লাহ সা. ৭টি জিনিস খাওয়া অপছন্দ করতেন।

এ প্রসঙ্গে হাদিসের একাধিক বর্ণনায় এসেছে ** বিখ্যাত তাবেয়ি হজরত মুজাহিদ (রাহ.) বর্ণনা করেন রাসূলুল্লাহ সা. বকরির সাত জিনিস (খাওয়াকে ) অপছন্দ করেছেন। (তাহলো)- প্রবাহিত রক্ত, পিত্ত, মূত্রথলি, মাংসগ্রন্থি, নর-মাদা পশুর গুপ্তাঙ্গ এবং অণ্ডকোষ।” (বায়হাকি) * অন্য হাদিসে এসেছে, ‘রক্ত ছাড়া হালাল পশুর অন্য কোনো অংশ হারাম নয়।’ তবে রাসূলুল্লাহ সা. হালাল পশুর এ অংশগুলো অপছন্দ করতেন

১. প্রবাহিত রক্ত

২. অকোষ

৩. চামড়া ও গোশতের মাঝে সৃষ্ট জমাট মাংসগ্রন্থি

৪. মূত্রথলি

৫. পিত্ত

৬. নর ও মাদা পশুর গুপ্তাঙ্গ।

তবে ইসলামে সর্ব সম্মতিক্রমে পশুর রক্ত খাওয়া নিষিদ্ধ। সুতরাং কোরবানির পশু হোক কিংবা হালাল যে কোনো পশু হোক; সব হালাল প্রাণীর রক্ত খাওয়া হারাম বা নিষিদ্ধ ।

হাদিসের অনুসরণে প্রিয় নবী সা. এর অপছন্দনীয় পশুর নির্ধারিত অংশগুলো না খাওয়াই উত্তম।

কুশিয়ারাভিউ২৪ডটকম/২০ জুলাই,২০২১/আহাদ





এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ









All Bangla Newspapers






















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত২০২২ কপিরাইট © কুশিয়ারা ভিউ টোয়েন্টিফোর ডটকম
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k