১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২০শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি



ঘরকে আরও আকর্ষণীয় করবে টেরারিয়াম

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৯ মার্চ, ২০২১

কম বেশি সবাই তো জানি টেরারিয়াম সম্পর্কে।টেরারিয়াম ঘরে থাকলে সেটি ঘরকে করে তোলে আরও আকর্ষণীয়।

কিন্তু ইচ্ছে থাকলেও টেরারিয়াম তৈরি করার পদ্ধতি না জানায় বাসায় করা সম্ভব হয় না। কিন্তু আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার ঘরে তৈরি করতে পারেন টেরারিয়াম।

কীভাবে তৈরি করবেন টেরারিয়াম?


চলুন এবার জেনে নেই টেরারিয়াম তৈরি করার পদ্ধতি—


*  টেরারিয়াম তৈরির সব উপকরণই পেয়ে যাবেন হাতের নাগালে। পাত্র হিসেবে বেছে নিন কাচের ফিশ বোল, জার বা বড় অ্যাকুয়ারিয়ামের পাত্র। চাইলে নষ্ট বাল্বের মধ্যেও সাজিয়ে ফেলতে পারেন বাগান।


*  এরপর লাগবে কিছু পাথরের টুকরো, কাঠ-কয়লা বা চারকোল, নুড়ি, শুকনো বালি, পাথর, মাটি, পুরনো দেয়ালে জন্মানো মস, ঘরের ভেতরে জন্মায় এমন তিন-চার প্রকারের গাছ।


*  টেরারিয়ামের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করতে হবে মাটি। কারণ এই মাটির কয়েকটি স্তর থাকে। মাটি আর্দ্রতা ধরে রাখতে পারবে এমন উপাদান থাকে। তার সঙ্গে মাটির মধ্য দিয়ে যেন বাতাস চলাচল করতে পারে, জমাট না বেধে যায় আবার অতিরিক্ত পানিও বেরিয়ে যেতে পারে, সেই ব্যবস্থাও করতে হবে।


*  প্রথমে কাচের পাত্রের নিচে ছোট ছোট পাথরের টুকরো দিয়ে দেড় ইঞ্চি পুরু স্তর বানাতে হবে। এরপর দিতে হবে কাঠ-কয়লার স্তর। এই দুটি স্তর অতিরিক্ত পানি শোষণ করে নেবে। একই সঙ্গে কাঠ-কয়লা বাতাস চলাচলে সহায়তা করবে।


* পাথর ও কাঠ-কয়লার স্তরের ওপর ব্যবহার করতে হবে মাটির স্তর। তবে এ মাটির স্তরের পুরুত্ব নির্ভর করবে কী ধরনের গাছ লাগাবেন তার ওপর।


* এবার পছন্দ মতো তিন-চার প্রকারের গাছ লাগিয়ে নুড়ি-পাথর দিয়ে সাজিয়ে নিন ইচ্ছে মতো। গাছ পছন্দের ক্ষেত্রে সাকুলেন্ট জাতীয় (যেসব গাছ কাণ্ড, শাখা-প্রশাখা, পাতা বা মূল পানি জমিয়ে রাখে) গাছ নির্বাচন করা যেতে পারে। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের ফার্ন ও মস রাখা যেতে পারে।
তবে শুধু টেরারিয়াম তৈরি করলেই হবে না। এইটিকে ভালো রাখতে মেনে চলতে হবে কিছু সাবধানতা।


কী কী সাবধানতা মানতে হবে?


* টেরারিয়াম রোদে রাখা যায় না।

* সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য প্লাস্টিকের ছোট খেলনা রাখতে পারেন।

* টেরারিয়ামে প্রয়োজন অনুযায়ী পানি স্প্রে করতে হবে। অতিরিক্ত পানি দেয়া যাবে না।

* অতিরিক্ত আর্দ্রতার কারণে কাচের গায়ে জলীয় বাষ্প জমলে ওপরের ঢাকনাটা খুলে দিতে হবে।

* বিভিন্ন পোকার সংক্রমণ থেকে গাছকে বাঁচাতে কীটনাশক এবং ছত্রাকনাশক ব্যবহার করতে হবে।

সূত্র: আমার সংবাদ

 

কুশিয়ারাভিউ২৪ডটকম/ফাহাদ






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k