৪ঠা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ১৮ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি



নদীভাঙনে হুমকির মুখে বিদ্যালয়

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১

নেত্রকোনার মদন উপজেলার ৩১নং বাগজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি নদীভাঙনের ফলে হুমকির মুখে পড়েছে।

বিদ্যালয়ের পিছনের বাথরুম ইতোমধ্যে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এখন যেকোনো মুহূর্তে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে বিদ্যালয়ের ভবনটি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে ভবনটি রক্ষার দাবি এলাকাবসীর।

জানা গেছে, উপজেলার তিয়শ্রী ইউনিয়নের বাগজান গ্রামের মগড়া নদীর তীরে ১৯৮৭ সালে স্থাপিত হয় বিদ্যালয়টি।

এর উত্তর পাশ দিয়েই বয়ে গেছে মগড়া নদী। পাহাড় থেকে নেমে আসা পানি এ নদী দিয়ে প্রবাহিত হয়। ফলে সারা বছরই ভাঙন থাকে। বর্ষায় এলে এবং বর্ষার পানি নেমে যাওয়ার সময় ভাঙন তীব্র আকার ধারণ করে। গত চার বছরের ভাঙনে বিদ্যালয়ের পিছনের অনেক অংশ এবং নির্মণাধীন বাথরুম নদীগর্ভে হারিয়ে গেছে। এখন মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে বিদ্যালয়ের ভবনটি। নদীর তীরে নেই কোনো বাউন্ডারি দেয়াল। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের নিয়ে শিক্ষক ও অভিভাবকরা সর্বদায় থাকেন আতঙ্কে ।

শিক্ষার্থী অভিভাবক আমিনুল ইসলাম, রবিউল খান কনু, মাহমুদা আক্তার, জাকির হোসেন রুবেল জানান, কয়েকটি গ্রামের প্রায় ৪-৫ শত শিক্ষার্থী এ বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করে। বর্তমানে বিদ্যালয় ভবনটির যে অবস্থা যেকোনো সময় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাবে। বিদ্যালয়টি রক্ষার জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে জোড় দাবি জানান তারা।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আনিছুর রহমান জানান, নদীভাঙনের ফলে বিদ্যালয়ের ভবনটি হুমকির মুখে পড়েছে। ভবনটি রক্ষার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেও কোনো রকম কাজ হচ্ছে না। নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। ভাঙনের যে অবস্থা যে কোনো সময়ে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে বিদ্যালয়ের ভবনটি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবুল হোসেন জানান, বাগজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনটি নদীভাঙনের ফলে মারাত্মক হুমকির মুখে পড়েছে। ভবনটি রক্ষার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি।






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k