৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি



নদীর পাড় দখল করে স্থাপনা নির্মাণ

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৮ আগস্ট, ২০২১

সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে নন্দকুঁজা নদীর পাড় দখলে নিয়ে পাকা স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রেখেছেন ব্যাংক কর্মকর্তা বেলাল হোসেন ও ব্যবসায়ী জহির।

গুরুদাসপুর উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের নাজিরপুর কলাহাটের কাছে প্রায় পাঁচ শতাংশ পাড় দখল করা হয়েছে।

বেলাল হোসেন অগ্রণী ব্যাংকের নাজিরপুর শাখায় সিনিয়র অফিসার পদে চাকরি করেন। তিনি নাজিরপুরের দুধগাড়ি গ্রামের সাবদুলের ছেলে, তিনি নাজিরপুর বাজার এলাকার বাসিন্দা। এ নিয়ে গুরুদাসপুর ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার নদীর জায়গার সীমানা নির্ধাণ করে দিলেও তা মানছেন না ওই প্রভাবশালীরা।

নাজিরপুর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা গোপাল কুমার সিংহ পাড় দখলের সতত্যা নিশ্চিত করে জানান, নদীর পাড় দখলের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে নদীর সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু সেই মাপ মানছেন না ওই প্রভাবশালী সরকারি নির্দেশ অমান্য করে আরসিসি দিয়ে স্থায়ী পাকা ভবন নির্মাণ করছেন। এখন উচ্ছেদের প্রস্তুতি চলছে।

কঅভিযুক্ত জহির বলেন, নদীর তীর ঘেঁষে তার স্ত্রীর নামে ৮.২৫ শতাংশের জমিটি কেনা হয়েছে।

তবে জমিটি স্ত্রীর নামে হলেও নদীর পাড় সংলগ্ন জমিতে ঘর নির্মাণের দায়িত্ব তিনিই নিয়েছেন। ব্যাংক কর্মকর্তা বেলাল জানান তার নির্মাণাধীন ঘরের কিছু অংশ নদীর জমিতে রয়েছে। তবে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে নিয়ম মেনেই ঘর নির্মাণ করছেন।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু রাসেল জানান, নদীর পাড় দখল করে স্থাপনা নির্মাণের সতত্য পাওয়া গেছে। অভিযুক্তদের নদীর পাড়ে স্থপনা নির্মাণ করতে বাধা দেয়া হয়েছে। কিন্তু সরকারি নির্দেশ অমান্য করে স্থাপনা নির্মাণ করা হচ্ছে। এটি উচ্ছেদ করতে জেলা প্রসাশকের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হচ্ছে।






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k