১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ২৭শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ২১শে রবিউল আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরি



প্রতিদিন সকাল-সন্ধ্যায় পড়বেন যে দোয়া

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৮ মার্চ, ২০২১

মহান আল্লাহ তায়ালার সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য ধর্মপ্রাণ মুসলমানেরা ফরয ইবাদতের পাশাপাশি বহু ধরণের নফল ইবাদত করে থাকেন। কিন্তু আবার অনেকেই দৈনন্দিন জীবনে ব্যস্ত থাকায় কারণে ফরয ইবাদত করলেও সময়ের অভাবে নফল ইবাদত করতে চায় না। ধর্মপ্রাণ সকল ধরণের মুসলমান ভাই ও বোনের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা তথা সর্বাবস্থায় আল্লাহর নিকট দোয়া করার তাগিদ দিয়েছেন। আল্লাহর এই স্মরণকে জিকিরও বলা হয়ে থাকে।

দুনিয়ার সকল প্রকার অনিষ্ট থেকে হিফাজত থাকতে আল্লাহ তালা রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের মাধ্যমে বিভিন্ন দোয়া ও আমল মানুষের জন্য দিয়েছেন। যার মাধ্যমে মানুষ দুনিয়ার অনিষ্ট ও আখিরাতে মুক্তি লাভ করবে।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হজরত আবু বকর রাদিয়াল্লাহু আনহুকে এমন একটি দোয়া সকাল-সন্ধ্যায় এবং শয্যা গ্রহণের সময় পড়তে বলেছেন। দোয়াটি হলো।

উচ্চারণ:আল্লা-হুম্মা ‘আ-লিমাল গাইবি ওয়াশ্‌শাহা-দাতি ফা-ত্বিরাস্ সামা-ওয়াতি ওয়ালআরদি রাব্বা কুল্লি শাইয়িন ওয়া মালিকাহু। আশ্‌হাদু আল্লা ইলা-হা ইল্লা আনতা আউজুবিকা মিন শার্‌রি নাফসি ওয়া মিন্ শাররিশ শাইত্বানি ওয়া শিরকিহী।

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! তুমি অদৃশ্য ও দৃশ্যকে জান, আসমান ও জমিনের তুমি স্রষ্টা, প্রত্যেক বস্তুর তুমি প্রতিপালক। আমি সাক্ষ্য দিচ্ছি যে, তুমি ছাড়া কোন মাবুদ নেই। আমি আমার মনের কুমন্ত্রণা, শয়তানের কুমন্ত্রণা ও তার শিরক হতে আশ্রয় চাই।’ (তিরমিজি, আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ ও মিশকাত)
হে আল্লাহ! আপনি উম্মাতে মুসিলমাকে সকাল-সন্ধ্যা এবং শয্যা গ্রহণের সময় এ দোয়াটি পড়ার তাওফিক দান করুন।

সৌজন্য: বাংলাদেশ জার্নাল।






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k