২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি



বাতাসেই ভেঙে পড়লো সেতু

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২১

টাঙ্গাইলের ধনবাড়িতে বাতাসেই ভেঙে গেছে বৈরাণ নদীর ওপর নির্মিত ৮০ মিটার সেতুটি। দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলার পাইস্কা ইউনিয়নের ভাতকুড়া ও দরিচন্দ্রবাড়ী দক্ষিণপাড়া গ্রামের বৈরান নদীর উপর এলজিইডি ২০১৮ সালে এডিবির অর্থায়নে সেতুটি নির্মাণ করেন। সেতুটি ভেঙে পড়ায় ২০ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন উপজেলা প্রশাসনের লোকজন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, নদীর ওপর ভেঙে পড়ে আছে সেতুটি। গতকাল শুক্রবার (২৭ আগস্ট) সকাল ১০টার দিকে সেতুটি ভেঙে যাওয়ায় ওই ইউনিয়নের ২০ গ্রামের মানুষজনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। কষ্টে রয়েছে তারা।

এলাকাবাসীরা অভিযোগ, নানা অনিয়মের মাধ্যমেই সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। স্থানীয় প্রভাবশালীরা সেতুটি নির্মাণ করায় অনিয়মের কথা বলার সাহস পায়নি কেউ। এছাড়াও সেতুটির নির্মাণের পরপরই সেতুর নিকট থেকে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন শুরু হয়। যার কারণে গত সোমবার (২৩ আগস্ট) সেতুটি হটাৎ করেই মাঝখানে দেবে যায়। নিচের গার্ডার ও পাটাতনে ফাটল ধরে। নির্মাণের কিছুদিন পর থেকেই রেলিং ভাঙতে শুরু করে।

স্থানীয় বাসিন্দা মিলন মিয়া, সাইফুল ইসলাম, তোতা মিয়া ও রফিকুল ইসলাম বলেন, সকাল ১০টার সময় সেতুটির মাঝখানে ভেঙে নদীতে পড়ে যায়। নানা অনিয়মের মাধ্যমেই সেতুটি নির্মাণ করা হয়েছিল বলে তারা জানান। ভেঙে যাওয়ার সময় মনে হলো সেতুটি বাতাসেই ভেঙে পড়লো। এখন পারাপারের জন্য ২০ গ্রামের মানুষজনের সাথে যোগাযোগ বিছিন্ন হয়ে গেছে। এতে করে আমাদের ভোগান্তির সীমা থাকবে না।

মমতা বেগম, খাদিজা বেগম ও শাহিনা আক্তার বলেন, যারা সেতুটি নির্মাণ করেছিল তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান তারা।

এ ব্যাপারে ধনবাড়ি উপজেলা প্রকৌশলী জয়নাল আবেদীন জানান, সেতুর নিকট থেকে বালু উত্তোলন করার ফলে সেতুটির এ দশা। আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

ধনবাড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) সামিউল জানান, প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

সৌজন: আরটিভি

 

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ











All Bangla Newspapers



অনলাইনে বাংলাদেশের সকল পত্রিকা পড়ুন…
















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত  ২০২২ কপিরাইট © কুশিয়ারা ভিউ টোয়েন্টিফোর ডটকম
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k