২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৯শে মহর্‌রম, ১৪৪৪ হিজরি



হুমকির মুখে ৪০ হাজার মানুষ

কুশিয়ারা ভিউ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১

হরিপুর-কুষ্টিয়া সংযোগ সেতু (শেখ রাসেল সেতু) রক্ষাবাধে ধস নেমেছে। ইতোমধ্যে নদীপাড়ের রাস্তাসহ বাঁধের ব্লক নদীতে ধসে পড়েছে।

গড়াই নদীর এই ভাঙনের ফলে হরিপুর ইউনিয়নের ৪০ হাজার মানুষ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। হুমকিতে রয়েছে স্কুল, মসজিদ ও মাদ্রাসাসহ কয়েক হাজার বসতবাড়ি।

গত ১০ মাস পর আবারো এই ভাঙনের সৃষ্টি হলো। গত রোববার ভোর থেকে দুপুর পর্যন্ত কমপক্ষে ৪৮ মিটার ব্লক গড়াই নদীতে বিলীন হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এলজিইডির কুষ্টিয়ার উপসহকারী প্রকৌশলী মো. আকমল হক।

পানি উন্নয়ন বোর্ড ও এলজিইডি অফিসের সমন্বয়হীনতা এবং নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার করে বাঁধ নির্মাণের কারণে ধস নেমেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন স্থানীয়রা। প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে ব্লক বাঁধ নির্মাণের চর বছর পার না হতেই সেতুর পূর্ব পাশের রাস্তা ও ব্লক পানিতে ধসে পড়লো। ধসে যাওয়া অংশের পরিমাণ প্রায় ৪৮ মিটার।

এর আগে ২০২০ সালের ১০ অক্টোবর একই জায়গায় বাঁধের প্রায় ৩০ মিটার ব্লক গড়াই নদে বিলীন হয়ে যায়। সংশ্লিষ্টদের অবহেলা ও উদাসীনতার কারণে ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রায় এক বছর আগে থেকেই নদীর এ স্থানটি ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কর্মকর্তাদের অবগত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু তারা কোনো উদ্যোগ গ্রহণ না করায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। দ্রুত সমস্যা সমাধান না করলে নদীপাড়ের ঘরবাড়ি ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নদীতে বিলীন হয়ে যেতে পারে। অবিলম্বে এ ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি এলাকাবাসীর।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কুষ্টিয়া হরিপুর সংযোগ সেতু রক্ষাবাঁধে ধসের কারণে নদীপাড়ের গাছপালা, রাস্তাসহ পানির ওপরের ব্লক নদীতে চলে গেছে। এতে বড় ধরনের গর্ত তৈরি হয়েছে।

এলজিইডির উপসহকারী প্রকৌশলী মো. আকমল হক বলেন, ওই জায়গা বরাবর নদীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ড্রেজিংয়ের কারণে সেতুর রক্ষাবাঁধে ধস নেমেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। ধসে যাওয়া অংশের পরিমাণ প্রায় ৪৮ মিটার।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আফছার উদ্দিন বলেন, ১০ মাস আগে একই জায়গায় বাঁধটিতে ধস নেমেছিল। আবারও ধস নেমেছে। বাঁধটি স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) তত্ত্বাবধানে রয়েছে। তারাই এটি দেখাশোনা করবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ











All Bangla Newspapers



অনলাইনে বাংলাদেশের সকল পত্রিকা পড়ুন…
















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত২০২২ কপিরাইট © কুশিয়ারা ভিউ টোয়েন্টিফোর ডটকম
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k