২রা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১০ই সফর, ১৪৪৩ হিজরি



২৯ ঘণ্টা পর সিলেটের সাথে রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে তেলবাহী ট্রেন দুর্ঘটনার পর বন্ধ হয়ে যাওয়া সারাদেশের রেল যোগাযোগ ফের স্বাভাবিক হয়েছে।

দুর্ঘটনার প্রায় ২৯ ঘণ্টা পর ভোর ৫টার দিকে ফেঞ্চুগঞ্জের মাইজগাঁও ও বিয়ালিবাজারের মাঝখানে গুতিগাঁও এলাকায় রেললাইনের মেরামতের কাজ শেষ হয়।

এরপর সকাল সোয়া ৬টার দিকে সিলেট থেকে উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায়।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার কায়স্থগ্রাম এলাকায় তেলবাহী ট্রেনের ১০টি বগি লাইনচ্যুত হয়। ফলে সিলেটের সাথে সারা দেশের ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এরপর শুক্রবার সকাল থেকে উদ্ধারকারী ট্রেন ঘটনাস্থলে এসে দুর্ঘটনা কবলিত বগিগুলো উদ্ধার ও ক্ষতিগ্রস্ত লাইন মেরামত করে।

এর আগে তেলবাহী কয়েকটি ওয়াগন থেকে তেল ছড়িয়ে পড়লে সংগ্রহের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েছে স্থানীয়রা। কারও হাতে বালতি, কারও হাতে পাতিল, কারও হাতে জগ, আবার কারও হাতে প্লাস্টিকের বড় গামলা। সবাই এসব পাত্রে জ্বালানি তেল সংগ্রহ করে বাড়ি নিয়ে যাচ্ছেন। কার আগে কে তেল নিয়ে যাবেন তা নিয়ে যেন চলছে এক ধরনের প্রতিযোগিতা। রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী ও থানা পুলিশ বারবার চেষ্টা করেও তাদের নিবৃত্ত করতে পারেনি।

এদিকে তেলবাহী ট্রেন দুর্ঘটনার কারণ জানতে ৫ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।রেলওয়ের বিভাগীয় পরিবহণ কর্মকর্তা মো. খাইরুল কবিরকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

শুক্রবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সকালে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিভাগীয় রেলওয়ে আর.ডি.এম সাদেকুর রহমান।

এদিকে কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়ার কথা বলা হয়েছে। লাইনচ্যুত বগি উদ্ধারকাজ শেষ হলেই তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করবে বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এ দুর্ঘটনার প্রায় ৮শ মিটার রেললাইন নষ্ট হয়েছে।এবং প্রায় ২লক্ষ ৭০ হাজার লিটার জ্বালানি তেল নষ্ট হয়েছে।






এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ





















© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
themesbazar_brekingnews1*5k